স্মার্টফোনে আসক্তি কমানোর কার্যকরী ৫ টি অ্যাপস!


স্মার্টফোনে আসক্তি বর্তমানে বিশ্বব্যাপী একটি বড় সমস্যা। সারাদিন ফোনে ডুবে থাকার কারণে বাবা মায়ের কাছে বকা খায়নি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। বাচ্চা থেকে বুড়ো, স্মার্টফোন ছাড়া যেনো কারোই খাবার হজম হয় না। অনেকেতো আবার দামী স্মার্টফোন ছাড়া বন্ধুদের কাছে মুখ দেখাতেই লজ্জা পান। অথচ আপনার প্রিয় ফোনটিই কেড়ে নিচ্ছে আপনার বহুমূল্য সময়। বিশেষ করে স্কুলপড়ুয়াদের মধ্যে এর প্রভাব সবচেয়ে বেশি।

আপনি কী স্মার্টফোনে আসক্ত?
স্মার্টফোন ব্যবহার একেবারেই ছেড়ে দেয়া সম্ভব নয়। আবার ছেড়ে দেয়ার চেষ্টা করাও উচিত নয়। কারণ, ফোন ব্যবহার করে আমরা অনেক ভালো এবং সৃজনশীল কাজও করতে পারি। তবে ফোনের ব্যবহার হতে হবে সীমিত আকারে। সারাদিন পড়ালেখা, কাজকর্ম ছেড়ে ফোনে গুতোগুতি করলে আপনার নিজের পায়ে নিজেই কুড়োল মারবেন।

আশা করি, আপনার স্মার্টফোন আসক্তি কিছুটা হলেও কমাতে সাহায্য করবে এই পোস্ট। এই পোস্টে কয়েকটি অ্যাপস নিয়ে আলোচনা করবো, যেগুলো আপনার ফোন চালানো সীমিত করতে সাহায্য করবে। ব্যাপার টা অনেকটা কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলার মতো। আমরা ফোনের প্রতি আসক্তি কমানোর জন্য ফোনকেই ব্যবহার করবো। এসব দেখে আপনার মোবাইলের রিয়েকশন এমন হতে পারে, হা হা হা!


চলুন তাহলে, দেরী না করে দেখে নেই অ্যাপসগুলোর বৈশিষ্ট্য এবং কীভাবে এগুলো আপনার মতো ফোন-পাগলকে ফোন থেকে দূরে রাখবে।

AppDetox

তালিকার এক নাম্বারে রয়েছে অ্যাপডেটক্স, যা আপনাকে আপনার মোবাইল অ্যাপের ব্যবহার কমাতে সাহায্য করবে। এটিকে একটি ডিজিটাল ডিটক্স ও বলা যেতে পারে আপনি ফোনের অ্যাপগুলোর জন্য নির্দিষ্ট রুলস সেট করতে পারেন। আপনার অ্যাপ্লিকেশনগুলোকে অ্যাপলকার দিয়ে লক করেও রাখতে পারেন

অ্যাপডিটক্স আপনাকে ফোন থেকে বিরতি নেওয়ার এবং যেসব অ্যাপ বেশি ব্যবহার হচ্ছে সেগুলোর ব্যবহার বন্ধ করার জন্য রিমাইন্ডার দেবেকিছু লোক তাদের বাচ্চাদের ফোন চালানোর সময় নিয়ন্ত্রণ করতে  অ্যাপডিটক্স ব্যবহার করছেন
Flipd

ফ্লিপড থাকলে, কখনো আপনার ফোন আপনাকে বিরক্ত করতে পারবে না! একটি গবেষণায় দেখা গেছে, ফ্লিপড একটি শীর্ষস্থানীয় অ্যাপ্লিকেশন যা কার্যকরভাবে আপনার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ এবং গেমগুলো হাইড করে, যাতে আপনি আপনার কাজে মনোনিবেশ এবং অন টাস্ক থাকতে পারেন

এমনকি আপনি নিজের ফোনটি বন্ধ রাখতে এবং আপনার কাজের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং অগ্রগতিতে যাওয়ার জন্য নিজেকে চ্যালেঞ্জ করতে পারেন

  • আপনার কাজ করার সময় ফোন থেকে আনপ্লাগ থাকার জন্য নিজেকে চ্যালেঞ্জ করুন।
  • ফ্লিপড আপনাকে টাস্ক কমপ্লিট করার জন্য মনে করিয়ে দেবে।
  • আপনি যে সময় বাঁচিয়েছেন তা ট্র্যাক করে নিজেকে মোটিভেট করুন।
  • বিভ্রান্তিকর অ্যাপস এবং গেমগুলি হাইড করার জন্য অ্যাপলকটি ব্যবহার করুন।
➥QualityTime

কোয়ালিটিটাইম আপনার স্মার্টফোনের মোট ব্যবহার, স্ক্রীন আনলক এবং অ্যাপ্লিকেশনগুলি ট্র্যাক করে আপনার অ্যাপগুলোর একটি অনন্য এবং গভীরতর বিশ্লেষণ করে আপনার কাজের সময় বিঘ্ন কমাতে "take a break" বা "scheduled breaks" এর মাধ্যমে ফোন থেকে কীভাবে আনপ্লাগড থাকবেন, তা কাস্টমাইজ করতে আপনি বিভিন্ন কোয়ালিটিটাইম প্রোফাইল তৈরি করতে পারেন

কোয়ালিটিটাইম প্রোফাইলের বিভিন্ন অপশনের মাধ্যমে আপনি বিরক্তিকর নোটিফিকেশন ব্লক, এসএমএস এবং ফোন কল প্রত্যাখ্যান করতে পারবেন এছাড়া এখানে আপনি ইম্পরট্যান্ট কলগুলোকে অ্যালাও করার জন্য এবং এই সীমাবদ্ধ সময়কালে নির্দিষ্ট অ্যাপগুলিতে অ্যাক্সেসের অনুমতি দেওয়ার অপশনও পাবেন।
➥YourHour

ইউর আওয়ার আমি ব্যক্তিগতভাবে ব্যবহার করি, এবং এটি ব্যবহার করে আমি ফোনে আসক্তি অনেকটা কমাতে পেরেছি। এটিতে আপনি দৈনিক স্মার্টফোন ব্যবহারের একটি লিমিট সেট করতে পারেন। এছাড়া যেসব অ্যাপে আপনার বেশি সময় ব্যয় হয়, অ্যাপটি নিজে থেকে আপনাকে সেসব অ্যাপ থেকে কয়েক ঘন্টা বা কয়েক মিনিট বিরত থাকার চ্যালেঞ্জ দেবে।

যদি আপনি ঠিকমতো কমপ্লিট কর‌তে পারেন, তাহলে রেওয়ার্ড পাবেন, যা আপনাকে মোটিভেট করবে। এছাড়া এটি আপনার অ্যাডিকশন লেভেল এবং ডেইলি ফোন ব্যবহারের রিপোর্ট দেখানোর মাধ্যমে আপনার উন্নতি / অবনতি দেখায়। যা আমার মতে ফোনে আসক্তি কমানোর জন্য সবচেয়ে জরুরী।
Forest

আপনি কি কখনও আপনার ফোনে এত বেশি আসক্ত হয়ে পড়েছেন যে এটি নামিয়ে রাখতে পারছেন না? ফরেস্ট ফোনের প্রতি আসক্তি হ্রাস করার জন্য অত্যন্ত আকর্ষণীয় একটি মাধ্যম ব্যবহার করে

এখানে, আপনাকে এই অ্যাপে একটি বীজ রোপণ করতে হবেএকটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে, এই বীজ ধীরে ধীরে একটি গাছে পরিণত হবেতবে, আপনি যদি এ সময়ে ফেসবুক বা কোনও গেইম খেলতে এই অ্যাপটি থেকে বের হয়ে যান, তাহলে আপনার গাছটি মুছে যাবেতবে এখানে একটি "হোয়াইট লিস্ট" অপশন আছে যেখানে অতি জরুরী অ্যাপগুলোকে লিস্ট করতে পারেন। এতে ওই অ্যাপগুলোতে ঢুকলে আপনার গাছ মুছে যাবে না। আকর্ষণীয় এই ব্যবস্থার মাধ্যমে, ব্যবহারকারীদের কোনো পরিশ্রম ছাড়াই তাদের ফোন থেকে দূরে থাকতে সাহায্য করবে

 বৈশিষ্ট্য
  • আপনাকে ফোনের আসক্তিকে কমাতে সহায়তা করার একটি সেল্ফ মোটিভেটেড এবং আকর্ষণীয় উপায়।
  • কাজে মনোনিবেশ করুন এবং আরও কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন।
  • আপনার বন্ধুদের সাথেও ফোন থেকে দূরে থাকার প্রতিযোগিতা করার সুবিধা।
  • পুরষ্কার অর্জন এবং আরও গাছের প্রজাতি আনলক করতে পারেন।
আপনার ফোনের প্রতি আসক্তি কমিয়ে কাজের দক্ষতা ও সৃজনশীল কাজে মনোযোগী হতে চান? তবে আপনি নিজেই নিজেকে শেখান, কীভাবে ফোনের ব্যবহার কমানো যায়। আপনার ফোন আপনার কী কী দরকারে আসে সেগুলো ভাবুন, অদরকারী কাজগুলো করা কমিয়ে ফেলুন।

সবশেষে, উপরে কিছু সেরা অ্যাপ আছে যেগুলো আপনার মানসিকভাবে এবং কী করা উচিত আর কী না করা উচিত সেগুলো নিয়ন্ত্রণ করতে শেখাবে। আপনার মানসিক শক্তিই হলো সেরা ঔষধ।

Post a Comment

0 Comments