প্রসেসর কেনার আগে যে বিষয়গুলো অবশ্যই জানা দরকার।

প্রসেসর কেনার আগে কোন কোন বিষয় জানা জরুরী, প্রসেসর কিনতে হলে কী কী জানতে হবে, ভালো প্রসেসর বাছাই করার উপায়, ভালো প্রসেসর চিনবো কীভাবে,


কম্পিউটারের প্রসেসরের কাজ অনেকটা মানুষের ব্রেইনের মতোই। ব্রেইন যেভাবে দেহের সকল কাজ নিয়ন্ত্রণ করে, প্রসেসরও ঠিক তেমনিভাবে কম্পিউটারের কাজগুলো নিয়ন্ত্রণ করে। এটি কম্পিউটারের অন্যতম প্রধান অংশ। যেহেতু প্রসেসরের সাথে কম্পিউটারের পারফর্মেন্স ওতপ্রোতভাবে জড়িত, তাই প্রসেসর কেনার আগে কয়েকটি বিষয় অবশ্যই লক্ষ্য রাখতে হবে।

ধরুন, আপনি প্রচুর গেইম খেলতে চান। সেক্ষেত্রে আপনাকে গেমিং এর উপযুক্ত প্রসেসর কিনতে হবে, তা না হলে গেইম খেলা যাবে না। অথবা দেখা গেলো, আপনি অনেক দাম দিয়ে প্রসেসর কিনলেন, কিন্তু ৬ মাস পরেই প্রসেসরে স্পীড কমতে শুরু করলো, তাহলে তো আপনার পুরো টাকাটাই জলে যাবে। আজকের এই পোস্টে, প্রসেসর কেনার আগে কোন কোন বিষয় সম্পর্কে জানা জরুরী তা নিয়ে আলোচনা করা হবে। আশা করি, পোস্টটি আপনার প্রসেসর কেনার ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে।

► বর্তমানে বাজারে Intel এবং AMD প্রসেসর সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। প্রযুক্তিগত দিক দিয়ে ইন্টেল কিছুটা এগিয়ে আছে। কিন্তু AMD ও সুলভমুল্যে বেশ কয়েকটি ভালো মানের প্রসেসর দিচ্ছে। সিংগেল ইউজে ইন্টেল প্রসেসর বেস্ট। কিন্তু মাল্টিটাস্কিং, যেমনঃ কনটেন্ট ক্রিয়েটিং, গেইমিং ইত্যাদি কাজগুলোর জন্য AMD ব্যবহার করতে পারেন।

► প্রসেসরের Clock Speed যত বেশি হবে, প্রসেসিং করার ক্ষমতাও তত বেশি হবে। তাই কেনার সময় ক্লক স্পীড কত, সেটা দেখে নিতে হবে। প্রসেসরের কোর, FSB বা QPI এবং থ্রেডের সংখ্যা যত বেশি হবে স্পীড তত বেশি হবে। তাই কেনার সময় এটি মাথায় রাখতে হবে। আরেকটি বিষয় হলো ক্যাশ মেমোরি। সবচেয়ে উন্নত ক্যাশ মেমোরি হলো L3 Cache

► Hyper Threading Technology প্রসেসরের একটি অন্যতম ফিচার। মাল্টিটাস্কিং করার ক্ষেত্রে এটির বিশেষ ভূমিকা আছে। ইন্টেলের প্রসেসর কিনলে "Turbo Boost Technology" রয়েছে কী না, দেখে নেবেন। এটি প্রয়োজনের সময় বিশেষ ক্ষেত্রে প্রসেসরের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।


► প্রসেসরে বিল্ট-ইন GPU থাকলে ভালো হয়। প্রসেসরে ভালো মানের জিপিউ থাকলে আলাদা গ্রাফিক্স কার্ডের দরকার হয় না। AMD এর APU প্রসেসরগুলোতে আলাদা জিপিউ রয়েছে, যেগুলো দিয়ে কন্টেন্ট ক্রিয়েটিং, গেইমিং এবং অন্যান্য গ্রাফিক্যাল কাজগুলো সহজেই করা যায়।

► প্রসেসরের সিরিজ একটি গুরুত্বপুর্ণ বিষয়। উন্নত সিরিজের প্রসেসরের মানও উন্নত হবে। ইন্টেলের প্রথম দিকের সিরিজ হলো, Pentium Series। এরপর এসেছে, Celeron series, Core Series, i Series AMD এর সিরিজগুলো হলো, Sempron, Athlon, AMD Athlon X2, AMD Athlon II X2, AMD Phenom, AMD FX, AMD APU। তাই নতুন সিরিজের প্রসেসর কেনা ভালো। সেই সাথে প্রসেসরটি আপনার মাদারবোর্ডে সাপোর্ট করবে কী না, তা জেনে নেবেন।

► পরিচিত দোকান থেকে প্রসেসর কেনা ভালো। অথবা, যেখান থেকে কিনছেন, তাদের কাস্টমার সাপোর্ট কেমন, তা জানা দরকার। কেননা, বর্তমানে নকল প্রসেসরে বাজার সয়লাব। প্রসেসরের বক্সে সিকিউরিটি স্টিকার না থাকলে নেবেন না। যেসব প্রসেসরে কোনো বক্স থাকে না সেগুলো বাল্ক প্রসেসর। এগুলোর দাম বক্স প্রসেসর থেকে কম। বাল্ক প্রসেসর কিনলে প্রসেসরটি অবশ্যই ফ্রেশ হতে হবে।

এই ছিলো, প্রসেসর কেনার কিছু ইম্পরট্যান্ট ফ্যাক্ট। পোস্টটি যদি আপনার একটুও সাহায্য করতে পারে, তাহলে আমার লেখা সার্থক। কম্পিউটার সম্পর্কিত বিভিন্ন টিপস এবং ট্রিকস পেতে বাংলা ব্লগ প্ল্যাটফর্ম রিজনইস্টিক এর সাথেই থাকুন। ধন্যবাদ। 

Post a Comment

0 Comments